আমরা ব্যতিক্রম কেন?

বাংলাদেশে আমরাই প্রথম ব্যতিক্রম ব্যবসায়িক উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। আমাদের পন্য সরাসরি ভোক্তার হাতে পৌছে দিয়ে লভ্যাংশের ৮০% ভোক্তা সাধারণকে বন্টন করছি। শুধু তাই নয়, আমাদের নিয়ন্ত্রণাধীন বর্তমান ও ভবিষ্যৎ সকল কোম্পানীর লভ্যাংশের ১০% ভোক্তা সাধারণের মাঝে বন্টন হবে। যা তার ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে জীবন ধারণের নিশ্চয়তার দ্বার প্রান্তে পৌছে দিবে। যেমন -

  • ভোক্তা পন্য ক্রয় করার সঙ্গে সঙ্গে ১ লক্ষ টাকার এক্সিডেন্টাল বীমা সুবিধা পাবে।
  • ভোক্তা সাধারণ বিনা সুদে লোন নিতে পারবে।
  • আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে ভোক্তা সাধারণকে আমরাই ব্যবসায়িক অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে জেনারেশন থেকে জেনারেশন পেনশন স্কীমের ব্যবস্থা চালু করেছি।
  • শুধু ভোক্তাই নয়, তার আত্মীয় স্বজনরাও বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বিনা মূল্যে কারিগরী স্কীল ডেভেলপমেন্ট ট্রেনিং এ অংশ গ্রহণ করতে পারবে। উল্লেখ থাকে যে, সেই সকল প্রশিক্ষণার্থীদেরকে উদ্যোক্তা হিসাবে গড়ে তোলার জন্য কোম্পানীর পক্ষ থেকে আর্থিক ও অন্যান্য সুবিধা প্রদান করা হবে।
  • প্রান্তীক জনগোষ্ঠীকে জাগরিত করে ক্ষমতায়ন করার জন্য ইউনিয়ন পর্যায়ে ভোক্তা সাধারণের আত্মীয় স্বজনকে (শুধু মহিলা) প্রশিক্ষণ দিয়ে আত্ম-কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি করে দেয়া হবে।
  • এই কোম্পানীর বর্তমান ও ভবিষ্যতে যত ধরণের ব্যবসায়িক উদ্যোগ গ্রহণ করবে, পক্ষান্তরে কোম্পানীর ক্রেতাগনও লভ্যাংশের অংশীদারিত্বে রূপান্তরিত হবে।